মাধবদীতে পরিবেশ দূষণের দায়ে এম.এম.কে ডাইংকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

১৫ নভেম্বর ২০২২, ০৭:০০ পিএম | আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫৪ এএম


মাধবদীতে পরিবেশ দূষণের দায়ে এম.এম.কে ডাইংকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীর মাধবদীতে তরল বর্জ্য পরিশোধনাগার (ইটিপি) সচল না রেখে নদী ও পরিবেশ দূষণের দায়ে একটি ডাইং কারখানাকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। মঙ্গলবার বিকালে মাধবদী থানার ভগিরথপুর এলাকার এম.এম.কে ডাইং, প্রিন্টিং, ফিনিশিং এন্ড ক্যালেন্ডারিং ইন্ড্রাষ্ট্রিজকে এই অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর নরসিংদী জেলা কার্যালয় থেকে জানানো হয়, নদী ও পরিবেশ দূষণ রোধে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করেন। জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার রিনাত ফৌজিয়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত ও পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা মাধবদীর এম.এম.কে ডাইং, প্রিন্টিং, ফিনিশিং এন্ড ক্যালেন্ডারিং ইন্ড্রাষ্ট্রিজ এ গিয়ে তরল বর্জ্য পরিশোধনাগার (ইটিপি) সচল না রাখাসহ ক্যামিকেলের সঠিক ব্যবহারে অনিয়ম দেখতে পান। এসময় নদীর পানি ও পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করার দায়ে প্রতিষ্ঠানটিকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

এসময় পরিবেশ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের পরিদর্শক সমর কৃষ্ণ দাসসহ জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারি কমিশনার রিনাত ফৌজিয়া জানান, জেলায় অনেকগুলো ডাইং ও ব্যাটারি কারখানা রয়েছে। এসব কারখানার তরল বর্জ্য থেকে পরিবেশ সংরক্ষণের জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে। ১ লাখ টাকা দণ্ডপ্রাপ্ত এম.এম.কে ডাইং কারখানাটিতে তরল বর্জ্য পরিশোধন করার জন্য পানিতে যে পরিমান প্যারামিটার থাকার কথা সেটি পাওয়া যায়নি। ক্যামিক্যাল সঠিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছিল না। এতে নদী ও পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছিল। পরিবেশ দূষণ রোধে জেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।