নরসিংদীতে ট্রেনেকাটা পড়ে একজন নিহত

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৫ পিএম | আপডেট: ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:১০ পিএম


নরসিংদীতে ট্রেনেকাটা পড়ে একজন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদী শহরের বটতলা রেলক্রসিং এলাকা থেকে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রেলক্রসিং সংলগ্ন রেলওয়ে কালভার্টের নিচে পানিতে ভাসমান অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, বুধবার রাতে এই রেললাইনে চলন্ত কোন ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে মারা গেছেন তিনি।

ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ওই ব্যক্তির নাম শিবু দেব (৫৫)। তিনি নরসিংদী শহরের পূর্ব ভেলানগর এলাকার সুনীল চন্দ্র দেবের ছেলে। তাঁর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার পর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। শহরের উপজেলা মোড়ের একটি মার্কেটের ভেতরে তাঁর চায়ের দোকান ছিল। 

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন থেকে বটতলা রেলক্রসিংটির দূরত্ব মাত্র প্রায় ১০০ মিটার। অননুমোদিত এই রেলক্রসিং দিয়ে কোন যানবাহন চলাচল করার সুযোগ না থাকলেও স্থানীয় লোকজন এপার-ওপার যাতায়াত করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে এই রেলক্রসিং পার হয়ে চলাচলরত এক ব্যক্তি রেলওয়ে কালভার্টটির নিচে পানিতে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পান। পরে আশপাশে উপস্থিত আরও কিছু মানুষকে ডেকে তিনি এই লাশ দেখান। এ সময় কৌতুহলী মানুষের ভিড় জমে যায়। পরে নরসিংদী মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িকে খবর দেয়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা এসে ওই লাশ উদ্ধার করে। পরে ঘটনাস্থলেই সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়।

রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি জানায়, নিহত ব্যক্তির মাথার পেছনের অংশ, পা ও হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে গেছে। এর মধ্যে তাঁর এক পা শরীরের সঙ্গে ঝুলে ছিল। নিহতের লাশ উদ্ধারের পর তাঁর কয়েকজন স্বজন এসে লাশ শনাক্ত করেছেন।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. ইমায়েদুল জাহেদী জানান, ধারণা করা হচ্ছে, নিহত শিবু দেব বুধবার রাতের কোন এক সময়ে চলন্ত ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে নিহত হয়েছেন। হয়তো দুর্ঘটনার সময় পথচারী হিসেবে তিনি এই রেলক্রসিং পার হচ্ছিলেন।