ট্রাম্পের ফোনালাপ ফাঁস: নির্বাচনের ফল পাল্টাতে চাপ প্রয়োগ

০৪ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:১৪ পিএম | আপডেট: ২৫ জুলাই ২০২১, ০৩:৩৭ এএম


ট্রাম্পের ফোনালাপ ফাঁস: নির্বাচনের ফল পাল্টাতে চাপ প্রয়োগ
ফাইল ছবি।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

গত মার্কিন নির্বাচনে জর্জিয়ার ফল পাল্টাতে যেকোনো ভাবে ১১ হাজারের বেশি ভোট খোঁজার জন্য জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের শীর্ষ নির্বাচনী কর্মকর্তাকে টেলিফোনে চাপ দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গণমাধ্যমে সদ্য ফাঁস হওয়া ট্রাম্প ও জর্জিয়ার শীর্ষ নির্বাচনী কর্মকর্তার এমন ফোনালাপে তোলপাড় চলছে আমেরিকা জুড়ে। রোববার (৩ জানুয়ারি) দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে তাদের ফোনালাপের অডিওটি প্রথম প্রকাশ করা হয়।

খবরে বলা হয়, ডোনাল্ড ট্রাম্প ২ জানুয়ারি ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে ফোন করে বলেন, ‘আমি এই একটা জিনিসই চাইছি- কোনোভাবে ১১ হাজার ৭৮০ ভোট খুঁজে বের করা।’ তবে ‘ফল সঠিক আছে’ ট্রাম্পকে জানান রাফেনসপারজারবলে।

ট্রাম্পের চাওয়া ১১ হাজার ৭৮০ ভোট ট্রাম্পের ঝুড়িতে গেলে জো বাইডেনের চেয়ে এক ভোট বেশি হয়ে যাবে তার এবং জর্জিয়ার নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করেছেন বলে প্রমাণিত হবে। এমনিতেই নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করেছেন বলে উল্লেখ করেন আসছেন।

ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রথমে ট্রাম্প রাফেনসপারজারকে বিভিন্নভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেন। এমনকি তাঁর প্রশংসায় নানা কথা বলেন এবং তাঁর ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করার জন্য বলেন। এতেও কাজ না হলে রাফেনসপারজারকে অপরাধের ভুয়া অভিযোগে ফাঁসানোর হুমকি দেন। একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে ট্রাম্প বলে বসেন, ব্র্যাড রাফেনসপারজার খুব বড় ঝুঁকি নিচ্ছেন। আবার গণনা করা করে ‘ভোট পাওয়া গেছে’ বলার মধ্যে কোনো ‘ভুল নেই’ বলে রাফেনসপারজারকে বোঝানোর চেষ্টা করেন।

ট্রাম্পের কথার প্রেক্ষিতে তিনি ভুল তথ্যের ওপর ভিত্তি করে কথা বলছেন দাবি করে ব্র্যাড রাফেনসপারজারক বলেন, রাজ্যের ভোট ঠিকই একাধিকবার গণনা করা হয়েছে। ব্র্যাড রাফেনসপারজার বিনয়ের সঙ্গে ট্রাম্পকে বলেন, এখন তার (ট্রাম্প) কথায় নতুন করে ভোট খোঁজার কাজ তিনি করবেন না।

এদিকে, রবিবার এক টুইটবার্তায় ব্র্যাড রাফেনসপারজারর সঙ্গে কথা বলার বিষয়টি জানান ট্রাম্প। ট্রাম্পের ভাষ্য, ‘ব্র্যাড রাফেনসপারজার নির্বাচনসংক্রান্ত জালিয়াতি নিয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি। ব্যালট পেপার নষ্ট করা, মৃত ভোটারদের ভোটার হিসেবে দেখানোর বিষয়টি আলোচনা করা হয়। কিন্তু তাঁর (ব্র্যাড রাফেনসপারজার) এসব নিয়ে কোনো ধারণা নেই।’

তবে ফিরতি টুইটবার্তায় ব্র্যাড রাফেনসপারজার বলেছেন, শ্রদ্ধার সঙ্গে বলতে হচ্ছে মি, প্রেসিডেন্ট, আপনি যা বলছেন, তা ঠিক নয়। সত্য বেরিয়ে আসবে।


বিভাগ : বিশ্ব