নরসিংদীতে ডিবি হেফাজতে নারী আসামীর মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:১৫ পিএম | আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৪:৪৪ এএম


নরসিংদীতে ডিবি হেফাজতে নারী আসামীর মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীতে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) হেফাজতে নূরতাজ বেগম (৬০) নামে এক নারী আসামীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে মাদক মামলায় গ্রেপ্তারের পর বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় জেলা হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

নিহত নূরতাজ বেগম (৬০) নরসিংদী পৌর শহরের দক্ষিনকান্দা পাড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত  পিয়ার হোসেন এর স্ত্রী।  তিনি চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি পুলিশের। এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা পুলিশ। তিন সদস্যের এই কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপপরিদর্শক নইমুল মোস্তাকের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল নূরতাজ বেগমকে ১০ কেজি গাঁজা সহ নরসিংদী শহরের ভেলানগর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের পর তাকে ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে রাখা হয়। রাত ৩ টার দিকে নূরতাজ বেগম অসুস্থ বোধ করেন। পরে তাকে নরসিংদীর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সকাল পৌনে ৮টার দিকে বুকে ব্যাথা অনুভব করেন এবং কিছুক্ষণ পর তার  মৃত্যু হয়।

নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক কর্মকর্তা ডা: মো: পলাশ মোল্লা বলেন, এবডমিন পেইন থাকায় রাতে ওই রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা দেয়ার পর তিনি অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তার বুক ব্যথা শুরু হলে তার মৃত্য হয়। হৃদরোগে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করে বলা যাবে।

নিহত নূরতাজ বেগম মাদক ব্যবসায়ী স্বীকার করলেও তার মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্বজনরা। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করার দাবী স্বজনদের।

এ বিষয়ে নরসিংদীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গাঁজাসহ গ্রেপ্তারের পর ডিবি হেফাজতে থাকা ওই নারী অসুস্থ বোধ করলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। আইন অনুযায়ী একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে তার লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। তার শরীরের কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।



এই বিভাগের আরও