মাধবদীতে এক‌ই পরিবারের ৯ সদস্য করোনায় আক্রান্ত

০৮ মে ২০২০, ০৩:২৪ পিএম | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩৪ পিএম


মাধবদীতে এক‌ই পরিবারের ৯ সদস্য করোনায় আক্রান্ত

মাধবদী প্রতিনিধি:

নরসিংদীর মাধবদীতে একদিনে সর্বোচ্চ ১১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জনই এক পরিবারের সদস্য এবং বাকী ২ জন পুরাতন রোগী বলে জানিয়েছেন নরসিংদীর সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহিম টিটন। গত ০৬ মে পরীক্ষার জন্য নরসিংদী থেকে ঢাকায় প্রেরণকৃত মোট ৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২০ জনের করোনা পজিটিভ ফলাফল আসে (০৭ মে প্রাপ্ত ফলাফল)। এর মধ্যে ৯ জনই জন মাধবদীর এক পরিবারের সদস্য। 

আক্রান্ত এই পরিবারটি মাধবদী বাজার ব্যাংকপট্টির ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (ইউসিবি) ভবনের বাসিন্দা। ইতোমধ্যেই ইউসিবি ব্যাংকসহ ওই চারতলা ভবনটি লকডাউন করেছে প্রশাসন। এনিয়ে মাধবদীতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ জনে। এর আগে মাধবদী পৌর এলাকার আলগী মনোহরপুরে এক পরিবারে ৩ জন এবং মেহেরপাড়া ইউনিয়নের ভগীরথপুরের একজন করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। আক্রান্ত ব্যক্তিদের সবাই বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। তবে গতকালের ফলাফলে মনোহরপুরের আক্রান্ত পরিবারের তিনজনের মধ্যে একজনের নেগেটিভ  এবং বাকি দুজনের পুণরায় পজেটিভ ফলাফল আসে।

এদিকে, করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ার প্রায় একসপ্তাহ পর গত বুধবার (০৬ মে) রাতে মাধবদীর কাশিপুরে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তার নমুনাও সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন নরসিংদী জেলা করোনা প্রতিরোধ ইমারজেন্সি সেলের প্রধান ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ইমরুল কায়েস। আজ শুক্রবার তার ফলাফল আসার কথা রয়েছে। এছাড়াও গত ১৯ এপ্রিল  ঢাকার কুর্মিটোলায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমির হোসেন (৪৫) নামের ব্যক্তি  মারা যান। পরে তার নমুনা পরীক্ষায় ফলাফল পজেটিভ আসে।

শিল্পশহর মাধবদীতে পরপর করোনার সংক্রমণের ঘটনায় সচেতন মহলে ব্যাপক উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। একদিকে এখানকার বাজার, ব্যাংকসহ সর্বত্র অসচেতন মানুষের ব্যাপক ভিড়, অন্যদিকে ১০ তারিখ থেকে সীমিত পরিসরে দোকানপাট খোলার ঘোষণায় দূরদূরান্ত থেকে নতুন করে লোকজন আসা শুরু করেছে। এ অবস্থায় কঠোরভাবে সামাজিক দূরত্ব নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে মাধবদীতে ব্যাপক মানুষ আক্রান্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা সচেতন মহলের।