সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত রাবি শিক্ষার্থী সোহাগের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

০৫ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:০৬ পিএম | আপডেট: ০৫ মে ২০২২, ০৪:০৭ এএম


সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত রাবি শিক্ষার্থী সোহাগের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

মো. আল-আমিন সরকার:

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের মেধাবী ছাত্র মাধবদীর বালুসাইর এলাকার সোহাগ মিয়া (২৪)’র মৃত্যুতে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বালুসাইর উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অত্র বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের উদ্যোগে এ স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বালুসাইর উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: ইলিয়াছ খানের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন মহিষাশুড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ডা. এনামুল হক শাহিন ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন ভুঁইয়া। এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন বালুসাইর উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য মো. আসাদুজ্জামান, মো. শামসুল হক মনির, মো. সোহরাব হোসেন, মো. বকুল মিয়াসহ স্কুলের শিক্ষকমন্ডলী ও নতুন-পুরাতন শিক্ষার্থীবৃন্দ।

স্মরণসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিহত সোহাগের বন্ধু ও অত্র স্কুলের ২০১৩ ব্যাচের সহপাঠী মো: আমিনুল ইসলাম , সৌমিক হাসান সোহান, সাইফুল ইসলাম নিশাত, ২০০৬ ব্যাচের মো. রমজান ও ২০০৮ ব্যাচের মো. সাইফুল ইসলাম প্রমূখ। এসময় বক্তারা নিহত সোহাগের স্মৃতিচারণ করে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। সভা শেষে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

রাবি শিক্ষার্থী সোহাগ মাধবদীর মহিষাশুড়া ইউনিয়নের বালুসাইর বেপারীপাড়া এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে। পরিবারে চার ভাইবোনের মধ্যে সোহাগ সবার বড় ছিলেন। পড়াশোনার সুবাদে তিনি রাজশাহীতেই থাকতেন।

গত ৩১ ডিসেম্বর পরিবারের সাথে বছর শেষের ছুটি কাটাতে তিনি রাজশাহী থেকে ন্যাশনাল ট্রাভেলস এর একটি বাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন। বেলা সাড়ে দশটার দিকে বাসটি সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা ব্রীজের কাছে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তা খাদে পড়ে যায়। এতে সোহাগের মৃত্যু হয়। সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পরদিন বালুসাইর শাহী ঈদগাহে জানাজা ও স্থানীয় কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। তার মৃত্যুতে রাজশাহী ইউনিভার্সিটিসহ তার গ্রামের স্কুলের পক্ষ থেকে শোকর‌্যালী, মানববন্ধন ও স্মরণসভা করা হয়।