মাধবদীতে পরকীয়ার অভিযোগে হামলায় শিক্ষক আহত

২২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪০ পিএম | আপডেট: ১৬ মে ২০২২, ১২:১০ এএম


মাধবদীতে পরকীয়ার অভিযোগে হামলায় শিক্ষক আহত

মাধবদী প্রতিনিধি:
নরসিংদীর মাধবদীতে পরকীয়ার অভিযোগে ইসমাইল হোসেন নামে এক শিক্ষকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মাধবদী পৌর এলাকার মাধবদী এসপি ইনস্টিটিউশন মাঠের পাশে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।


আহত ইসমাইল হোসেন মাধবদী এসপি ইনস্টিটিউশনের ইংরেজির শিক্ষক। তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় রাতেই আহত শিক্ষকের স্ত্রী তাসকিয়া খন্দকার হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মাধবদী থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, মাধবদী পৌর এলাকার বিরামপুর মহল্লার মোঃ কবিরের পুত্র রিশাদ (২৪), মৃত জয়নাল আবেদীনের পুত্র মোঃ জাকির হোসেন (৪০), মোঃ সেলিম মিয়াসহ (৪৮) আরো অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন এসপি ইনস্টিটিউশন মাঠের পাশে শিক্ষক ইসমাইল হোসেনকে আটক করে। এসময় তাকে মারধর করে একটি কক্ষে নিয়ে গিয়ে ক্রিকেট খেলার ব্যাট ও স্ট্যাম্প দিয়ে আঘাত করে আহত করা হয় এবং সঙ্গে থাকা ৪৫ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন লুট করা হয়।


অপরদিকে হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত মোঃ জাকির হোসেন জানান, তাদের বাড়ির পাশে ভাড়া বাসায় বসবাসের সুযোগে তার স্ত্রী সুমাইয়া আক্তার ইথার সঙ্গে শিক্ষক ইসমাইল হোসেনের পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে দুজন পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সম্প্রতি বাসায় ঝগড়া করে বাপের বাড়ি চলে যান স্ত্রী। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি দেখতে পান তার স্ত্রী কক্সবাজারে অবস্থান করছেন। পাশে শিক্ষক ইসমাইলকেও দেখা যায়। এ ঘটনায় গত ২০ ডিসেম্বর থানায় জিডি করেন জাকির হোসেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দেখা হলে শিক্ষক ইসমাইল জিডি করার কারণ জানতে চেয়ে মারধর শুরু করেন। খবর পেয়ে আমার বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে ঝগড়া হয়।

মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সৈয়দুজ্জামান বলেন, এবিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ এসেছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।