মাধবদীতে লিচুগাছে বিদ্যুৎ সংযোগ, বিদ্যুতায়িত হয়ে কিশোরের মৃত্যু

২৭ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪০ পিএম | আপডেট: ২০ জুন ২০২২, ০৫:৩৬ এএম


মাধবদীতে লিচুগাছে বিদ্যুৎ সংযোগ, বিদ্যুতায়িত হয়ে কিশোরের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীর মাধবদীতে চোর ও বাঁদুড়ের হাত থেকে লিচু রক্ষার জন্য লিচুগাছে দেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগে স্পৃষ্ট হয়ে সোহাগ মিয়া (১৪) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৬ এপ্রিল) দিবাগত রাত এগারোটার দিকে মাধবদী থানাধীন নওপাড়া এলাকায আঃ রহমানের গাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সোহাগ (১৪) একই এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নওপাড়া এলাকার আঃ রহমানের একটি চারাগাছে ধরা লিচু প্রতিরাতেই বাঁদুড় খেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এছাড়াও কে বা কারা চুরি করে নিয়ে যায়। গত রোববার রাতেও চোরেরা লিচু চুরি করতে গেলে গাছের মালিক তাড়া করেন। পরে চোরের হাত থেকে লিচু রক্ষা করতে সোমবার রাতে ওই লিচু গাছে বিদ্যুৎ সংযোগ দেন আ: রহমান। ওই রাতেই একই এলাকার তিন কিশোর সোহাগ মিয়া (১৪), রানা মিয়া (১৮) ও বাবু (১৮) গোপনে ওই গাছ থেকে লিচু পাড়তে যায়। এতে সোহাগ মিয়া বিদ্যুতায়িত হয়ে আহত হলে সঙ্গীয় রানা ও বাবুর আর্তচিৎকারে এগিয়ে আসেন স্থানীয়রা। এসময় সোহাগকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতাল নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে পুলিশ মরদেহের সুরৎহাল প্রতিবেদন তৈরি করে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করে। এ ঘটনার পর থেকে লিচু গাছের মালিক আঃ রহমান বাড়ি ঘরে তালা লাগিয়ে পালিয়ে গেছেন।   

 

যোগাযোগ করা হলে মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান জানান, লিচু গাছের মালিক বাঁদুড়ের হাত থেকে লিচু বাঁচানোর জন্য গাছে বিদ্যুৎ সংযোগ দেন। রাতে সোহাগ নামের এক কিশোর ওই গাছের লিচু পারতে গেলে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা যায়। তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এখনো পযর্ন্ত (মঙ্গলবার বিকাল ৫টা) কেউ কোন অভিযোগ করেনি। পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।  

 



এই বিভাগের আরও