বেলাবতে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৮

০৬ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৫৬ পিএম | আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৪ পিএম


বেলাবতে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৮

বেলাব প্রতিনিধি:
নরসিংদীর বেলাবতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৮ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুইজনকে বেলাব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ও অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। বুধবার (০৬ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার বাজনাব ইউনিয়নের বাজনাব ভাংগারঘাট নামক স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা জানান, বাজনাব ভাংগারঘাট গ্রামের মৃত গাজী আঃ রহমান মিয়ার তিন ছেলে জহিরুল, নজরুল ও তাজুল ইসলামের ক্রয়কৃত ১৪ শতাংশ জমি তাদের নামে রেকর্ডভুক্ত। কিন্ত কয়েক বছর ধরে উক্ত জমি নিজের বলে দাবি করে একই গ্রামের মৃত মোস্তাক আহমেদের ছেলে ইসতেকার আহমেদ ওরফে ফয়সাল মিয়া। এই নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তিন ভাইয়ের সাথে ফয়সালের বিরোধ চলে আসছে।


দুই বছর আগে এ নিয়ে আদালতে ১৪৫ ধারায় একটি মামলা করেন জহিরুল ইসলাম। কিন্তু মামলায় নিষেধাজ্ঞা জারির পরও উক্ত জমি নিজেদের দাবি করে বিভিন্ন সময় জমিতে কাজ করে উভয় পক্ষ। এ নিয়ে বাজনাব ভাংগারঘাট গ্রামের তিন ভাইয়ের সাথে দ্বন্দ্ব চরমে পৌঁছে ফয়সাল মিয়ার। বুধবার সকালে ওই জমিতে কাজ করতে যায় তিন ভাই জহিরুল, নজরুল ও তাজুল ইসলাম। এ সময় দা লাঠি নিয়ে তাদের উপর অতর্কিতে হামলা চালায় ফয়সাল পক্ষের ইকবাল হোসেন, শাহজাহান, জুয়েল মিয়া, সাগর মিয়া, রবিন মিয়া, শাহীন মেম্বার, ফারুক মিয়াসহ বেশ কয়েকজন।


হামলায় আহত হয় মৃত গাজী আঃ রহমানের ছেলে তাজুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম নামে তিন ভাই ও হামিদা বেগম ও সাথী আক্তার নামে দুই নারী। অন্যদিকে ফয়সালের পক্ষে আহত হয় মৃত হারুন মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন, শাহীন মেম্বার, তাজুল ইসলামের ছেলে জামাল মিয়া।

আহত জহিরুল ইসলাম বলেন, ফয়সাল সম্পর্কে আমাদের চাচা হয়। তার সাথে জমি নিয়ে আমাদের দ্বন্দ্ব চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। কিন্তু যারা আজকে আমাদের উপর হামলা করেছে তারা তৃতীয় পক্ষ। আমরা মনে করি তারা ফয়সালের ভাড়াটিয়া গুন্ডা। আমরা এই হামলার বিচার চাই।


নজরুল ইসলাম বলেন, উক্ত জমিতে আমরা আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। নিষেধাজ্ঞা জারির পরও শাহীন মেম্বার জোর খাটিয়ে উক্ত জমি সেলিম নামে এক লোকের কাছে ৫ বছরের জন্য ভাড়া দিয়েছে।

অভিযুক্ত ফয়সাল আহমেদ বাড়িতে না থাকায় তার মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিয়েও মোবাইল বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেয়া যায়নি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ শাহীন বলেন, এই জমির মালিক ফয়সাল। কিন্তু জহিরুল তাজুল নজরুল সহ তারা ছয় ভাই গায়ের জোরে এই জমিটি দখল করার চেষ্টা করছে। আমরা চাচ্ছি উভয় পক্ষকে ঢেকে ঘটনাটি মিমাংসা করার জন্য।

বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাফায়েত হোসেন পলাশ বলেন, উভয় পক্ষের লোকই নাকি আহত হয়েছে। আমরা উভয় পক্ষকেই বলেছি অভিযোগ দেয়ার জন্য। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।