বেলাবতে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক বীর মুক্তিযোদ্ধার উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

৩১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:০৩ পিএম | আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৯ পিএম


বেলাবতে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক বীর মুক্তিযোদ্ধার উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বেলাব প্রতিনিধি:
নরসিংদীর বেলাবতে যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ কুদরত আলীর উপর হামলার প্রতিবাদে বিন্নাবাইদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম মোস্তফা গোলাপ মিয়ার বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদের একাংশ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড। বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকালে বেলাব উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

এসময় হামলাকারী ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বেলাব থানা অফিসার ইনচার্জের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ প্রদান করা হয়।

মানবন্ধনের বক্তব্য রাখেন বেলাব উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আঃ ওহাব প্রধান, বিন্নাবাইদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও শহীদ পরিবারের সন্তান মোঃ জহিরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান মোঃ সুজন মিয়া।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ ডিসেম্বর দুপুরে চর বাঘবের লোহাজুরী কান্দা গ্রামের পিছনে বেলাব থানার একটি মামলার তদন্ত করছিলেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) সদস্যরা। তদন্তের সময় স্বাক্ষী দেওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তুফা গোলাপ মিয়া তার কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ কুদরত আলীর উপর হামলা করেন। বর্তমানে তিনি বেলাব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।
লাল বার্তায় নাম থাকা ও বর্তমানে ভাতাপ্রাপ্ত আহত ওই বীর মুক্তিযোদ্ধা কুদরত আলী জানান, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও তার কিছু লোক আমাকে মারধর করেছে। আমি হামলাকারী চেয়ারম্যানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

বেলাব উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মোঃ আলী সাফী বলেন, এ ঘটনার ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। কেউ আমাকে এ ব্যাপারে অবগত করেনি।

অভিযুক্ত চেয়ারম্যান মোঃ গোলাপ মিয়া বলেন, এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা অভিযোগ। আমরাও এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবো।

বেলাব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাফায়েত হোসেন পলাশ বলেন, আমি একটু বাইরে আছি। মানববন্ধন করা বা কোন অভিযোগ দেয়া হয়েছে কী না তা আমি এখনো জানি না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিমা শরমিন বলেন, এ ব্যাপারে আমার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। আমি বেলাব থানাকে বলেছি এটা তদন্ত করে যেন ব্যবস্থা নেয়া হয়।