লোকসানী শিল্প প্রতিষ্ঠানকে লাভজনক করতে কার্যকর পন্থা বের করুন: শিল্পমন্ত্রী

২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০৬ পিএম | আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৪ এএম


লোকসানী শিল্প প্রতিষ্ঠানকে লাভজনক করতে কার্যকর পন্থা বের করুন: শিল্পমন্ত্রী
বক্তব্য রাখছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজুদ মাহমুদ হুমায়ূন।

অর্থনীতি ডেস্ক:

বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশনের (বিএসইসি) অধীনস্থ শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোকে লোকসান কমিয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে কার্যকর পন্থা খুজে বের করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজুদ মাহমুদ হুমায়ূন।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিএসইসি কর্তৃক আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ‘ব্যবসা উন্নয়ন সম্মেলন’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশ দেন।

২১ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত এ ব্যবসা উন্নয়ন সম্মেলন বিএসইসি’র শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা অংশগ্রহণ করেন।

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, আমরা রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করতে চাই না। কারণ এর সঙ্গে কর্মসংস্থানের বিষয় জড়িত। কাজেই নতুন নতুন বিনিয়োগ আনতে হবে ও প্রকল্প নিতে হবে। কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দক্ষতা বাড়াতে হবে। অদক্ষ ও অপ্রয়োজনীয় জনবল বাদ দিতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশন (বিএসইসি) ৬২টি শিল্প প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে গঠিত হয়। তা কমতে কমতে বর্তমানে নয়টি প্রতিষ্ঠান টিকে রয়েছে। বর্তমান মুক্ত বাজার অর্থনীতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিএসইসি’র নিয়ন্ত্রণাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিচালনা করার জন্য উৎপাদিত পণ্যের আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে উৎপাদন বাড়ানো, প্রতিযোগিতামূলক বাজার বিবেচনায় পণ্যের বিক্রয় মূল্য নির্ধারণ ও বিক্রয় বাড়ানো, গ্রাহকের/ক্রেতার চাহিদার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন নতুন পণ্য উৎপাদনের ব্যবস্থা অর্থাৎ পণ্য বহুমূখীকরণ করতে হবে। পণ্য উৎপাদনে আধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপন, মালমাল ক্রয় ও পণ্য বিক্রয় ব্যবস্থা যুগোপযোগী করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিএসইসির চেয়ারম্যান শহিদুল হক ভূঁইয়া বলেন, শুধু ডিপিএম নির্ভর না থেকে আমাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরণের জন্য বহুমুখী উপায় বের করতে হবে এবং প্রতিযোগিতায় নিজেদের সক্ষমতা প্রমাণ করতে হবে।

বিএসইসির চেয়ারম্যান মোঃ শহীদুল হক ভূঞার সভাপতিত্বে এ সম্মেলেনে আরও উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ফয়েজুল আমীনসহ মন্ত্রণালয় ও বিএসইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।


বিভাগ : অর্থনীতি