তাড়াশে কলেজের নির্মানাধীন গেট ধসে ৪ জন নিহত

১৭ মার্চ ২০২০, ০৭:৫১ পিএম | আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৪৫ পিএম


তাড়াশে কলেজের নির্মানাধীন গেট ধসে ৪ জন নিহত
ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার গুল্টা শহীদ এম মুনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের নির্মানাধীন গেট ধসে ঘটনাস্থলেই এক শিশুসহ ৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ১০ জন। মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) আনুমানিক ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তাড়াশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের একটি ইউনিট উদ্ধার কাজে অংশ নেয়। ঘটনাস্থলে থাকা ফায়ার লিডার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ৪ ব্যক্তির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতাল ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

নিহতরা হলেন গাবর গ্রামের মৃত জাহারুল্লার ছেলে তোজাম্মেল হক (৫৫), বস্তুল গ্রামের সুলতান হোসেনের ছেলে রাশিদুল ইসলামের ছেলে রাশিদুল ইসলাম (৩০) ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের শাহাদৎ হোসেনের ছেলে আসিফ (১২) ও শাহজাদপুর উপজেলার অজ্ঞাতনামা গরুর ব্যাপারী (৫০)।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার ছিলো গুল্টা হাটবার। এ কলেজ চত্বরেও গরুর হাট বসে। বিকেল ৪টার দিকে হাট যখন জমে উঠেছে ঠিক তখনই গেট ধসে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওই কলেজের প্রভাষক আবুল বাশার অভিযোগ করে বলেন, কলেজের অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান আসাদ একক সিদ্ধান্তে সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য ৩ মাস আগে পাকা গেটটি নির্মাণ করেন। নিম্নমানের কাজ করার ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই রায়গঞ্জ-তাড়াশ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আজিজ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। স্থানীয়রাসহ তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইফ্ফাত জাহান, ওসি মাহবুবুল ইসলাম ও মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনাস্থলে উদ্ধারকাজে তদারকি করেন।


বিভাগ : বাংলাদেশ