আমার বক্তব্য বিকৃত করে ফেসবুকে ছাড়া হয়েছে: হারুন অর রশিদ খান

১১ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৫৭ পিএম | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৩৬ পিএম


আমার বক্তব্য বিকৃত করে ফেসবুকে ছাড়া হয়েছে: হারুন অর রশিদ খান

শিবপুর প্রতিনিধি:
আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম জড়িয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের বিষয়ে শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ খান দাবি করেছেন তার বক্তব্য বিকৃত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছাড়া হয়েছে।
সোমবার (১১ নভেম্বর) যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শিবপুর উপজেলা যুবলীগ আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি করেন।


তিনি বলেন, আমার বক্তব্যের প্রতিবাদে যারা আজ মানববন্ধন করেছেন তারা আওয়ামীলীগের কেউ নয়। তারা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ব্যক্তির ভাড়াটিয়া হিসেবে ব্যবহার হয়ে থাকে। তারা কখনো সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, কখনো এমপি মোহন, কখনো আরিফ মৃধার সাথে ভর করে। তারা আওয়ামীলীগের নামে দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। দীর্ঘ ৪০ বছর যাবত লড়াই সংগ্রাম করে শিবপুরে আওয়ামীলীগের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করেছি।

হারুন অর রশিদ খান আরও বলেন, মিথ্যা মানববন্ধন করে আমাকে নয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে। আমি শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে কোন কথা বলিনি। আমি বলেছি জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহনকে। কারণ গত ৮ নভেম্বর পুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম মোল্লাকে অতিথি করায় এমপি মোহন বলেছেন সিরাজ মোল্লা, স্বতন্ত্র নির্বাচন করেছেন, তিনি একাধিক মামলার আসামী তাকে কীভাবে অতিথি করা হয়? এসব বক্তব্যসহ তার বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য দেয়। এমনকি সাবেক এমপিকে অতিথি করায় আমাকে উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন আপত্তিকর কথা বলে সম্মেলনে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির চেষ্টা করেন। এসময় আমি বলেছি সিরাজুল ইসলাম মোল্লাকে বহিস্কারের দায়িত্ব শেখ হাসিনার। আমি কীভাবে বহিস্কার করব? যেখানে শেখ হাসিনা যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে সিরাজুল ইসলাম মোল্লাকে গণভবনের সভায় দাওয়াত করেন, তাহলে আমি করলে দোষ কোথায়? আপনি পারলে শেখ হাসিনাকে গিয়ে বলেন। আমি এই কথা বলেছি অথচ আমার বক্তব্য বিকৃতি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি রেকর্ড ছাড়া হয়েছে। যা মিথ্যা এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মাহবুব আলম মোল্লা তাজুলের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঁইয়া রাখিল, জেলা যুবলীগের সভাপতি বিজয় কৃষ্ণ গোস্বামী, সহ-সভাপতি সামসুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাপসী রাবেয়া, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামাল হোসেন প্রমুখ। সভা শেষে মিথ্যা মানববন্ধন এর প্রতিবাদে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।