রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

০৫ জুন ২০২৪, ০২:২৩ পিএম | আপডেট: ২১ জুন ২০২৪, ০৮:১৩ এএম


রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

কাউছার মাহমুদ:

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সুমন মিয়া হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (৫ জুন) দুপুরে রায়পুরা বাসস্ট্যান্ডে প্রতিবাদ সমাবেশ ও পরে উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে নিহতের স্বজন, রাজনৈতিক সহকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

রায়পুরার সর্বস্তরের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন ও হত্যার প্রতিবাদ কর্মসূচীতে অংশগ্রহণকারীরা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মো: সুমন মিয়ার হত্যায় জড়িত পলাতক আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

এসময় বক্তারা বলেন, প্রধান আসামী আবিদ হাসান রুবেল একজন সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী, ভূমিদস্যু। অবিলম্বে রুবেলকে গ্রেপ্তার করে ফাঁসি কার্যকর করা হোক। সুমন স্ট্রোক করে মারা গেছে, এমন প্রোপাগাণ্ডা ছড়ালে ষড়যন্ত্রকারীদের কঠিন জবাব দেওয়া হবে বলেও হুশিয়ারী দেন বক্তারা।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, নিহত সুমনের পিতা ও চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন,  মির্জানগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মঞ্জুর এলাহী, রায়পুরা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ বেগম, পাড়াতুলী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামসহ অন্যান্যরা।

গত ২২ মে দুপুরে তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনের প্রচারনায় রায়পুরার চরাঞ্চল পাড়াতলী এলাকায় যান ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তালা প্রতিকের মো: সুমন মিয়া। এসময় অপর প্রতিদ্বন্দ্বি ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেল (চশমা) এর সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় দৌড়ে বাঁশগাড়ী পুলিশ ফাঁড়িতে আশ্রয় নেন মো: সুমন মিয়া। পরে সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের পিতা ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেলকে প্রধান আসামী করে হত্যা মামলা করেন। এতে ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৪০-৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়।

এছাড়া প্রার্থী মো: সুমন মিয়ার মৃত্যুতে পরদিন ২৩ মে এ উপজেলায় ভোট গ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

 



এই বিভাগের আরও