নরসিংদীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন মসজিদের খাদেমের মৃত্যু

০৯ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১৭ পিএম | আপডেট: ১৩ মে ২০২১, ০৯:৩৭ এএম


নরসিংদীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন মসজিদের খাদেমের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীতে মসজিদের জেনারেটরে জ্বালানী ভরার সময় অগ্নিদগ্ধ হওয়ার ৬দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মসজিদের খাদেম মো. বাদল মিয়া (৪০) এর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (০৯ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুরের সংগীতা এলাকার ওই মসজিদে জেনারেটরে জ্বালানী ভরার সময় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধ হন তিনি। এতে তার শরীরের প্রায় ৭০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানান পরিবারের লোকজন।

মো. বাদল মিয়া নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের সংগীতা এলাকার মৃত মো. হিরণ মিয়া ওরফে ঠেলা মিয়ার ছেলে। খাদেম এর দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি এলাকায় ঘুরে তিনি কবিরাজিও করতেন।  


স্থানীয় লোকজন ও নিহত ব্যক্তির স্বজনরা জানান, রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চিনিশপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদিয়া এলাকার কয়েকটি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে ওই আগুন নেভানোর সময় পুরো এলাকাটির বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে সংগীতার ওই মসজিদটির অবস্থান। স্থানীয় মুসল্লিরা এশার নামাজ পড়তে যখন ওই মসজিদে আসতে শুরু করেন তখনও বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ ছিল। এসময় মসজিদটির খাদেম মো. বাদল মিয়া এক হাতে মোমবাতি নিয়ে অন্য হাতে জেনারেটরে জ্বালানি তেল ডিজেল ভরছিলেন। ওই সময়  অসতর্কতাবশত মোমবাতির আগুন লেগে গেলে অগ্নিদগ্ধ হন মো. বাদল মিয়া। উপস্থিত লোকজন দ্রুত তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজধানীর ঢাকা মেডিকেল কলেজের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে পাঠান। সেখানেই ৬ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ সকাল ৮টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়।


নিহতের ছোটভাই শাহাদাৎ মিয়া জানান, বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা আমাদের জানিয়েছিলেন ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তার শরীরের প্রায় ৭০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ধীরে ধীরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। একবার ব্লিডিং হওয়ার পর থেকেই শরীরে পানির পরিমান কমতে শুরু করেছিল। আজ সকাল ৮টার দিকে তিনি মারা যাওয়ার পর সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুরে তার লাশ বাড়িতে আনা হয়েছে। স্থানীয় গাবতলী মাদ্রাসায় জানাজা নামাজ শেষে বাদ আসর তার লাশ দাফন।