বেলাবতে অনুমোদনহীন কারখানায় বিস্ফোরণে দগ্ধ ৬, কী হচ্ছিল ভেতরে?

০৬ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৭ পিএম | আপডেট: ২১ জুলাই ২০২৪, ০২:২৯ এএম


বেলাবতে অনুমোদনহীন কারখানায় বিস্ফোরণে দগ্ধ ৬, কী হচ্ছিল ভেতরে?

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীর বেলাবতে কোনপ্রকার অনুমোদন ছাড়াই উৎপাদন শুরু করা “চায়না ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং কোম্পানী লিমিটেড” নামক একটি প্রতিষ্ঠানে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার (৫ জুন) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে হওয়া এ বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়েছেন কারখানাটির ৬ শ্রমিক। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ৬ শ্রমিকের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন কারখানার এক কর্মকর্তা।

বিস্ফোরণের পর অনুমোদনহীন কারখানাটি নজরে আসে স্থানীয় প্রশাসনের। পবিবেশবান্ধব ব্লক ইট তৈরি করার নামে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিয়েছিল কারখানাটি। এছাড়া আর কোন ছাড়পত্র না থাকার পরও কীভাবে উৎপাদনে গিয়েছিল কারখানাটি এ প্রশ্ন এলাকাবাসীর।

কারখানা সংশ্লিষ্ট লোকজন ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের দুলালকান্দি গ্রামের একটি এগ্রো ফার্মের পরিত্যক্ত জায়গা নিয়ে গড়ে তোলা হয় চায়না ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং কোম্পানী লিমিটেড। চায়নাদের মালিকানাধীন এই কোম্পানীতে কর্ম দেয়া হয়নি স্থানীয় কোন শ্রমিককে। এমন কী এলাকার কাউকেই ঢুকতে দেয়া হতো না প্রতিষ্ঠানটিতে। ঈদুল আযহার পর থেকে যাত্রা শুরু করা এই কোম্পানীর ভিতরে কি করা হয় তা ছিল এলাকাবাসীর অজানা। জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর ও স্থানীয় প্রশাসনেও নেই কোম্পানীটির কোনপ্রকার তথ্য।

শুক্রবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয় কোম্পানীটির ভিতরের একটি বয়লার। এতে অগ্নিদুগ্ধ হয়ে আহত হয় কোম্পানীর ভিতরে কাজ করা ৬ শ্রমিক। এলাকাবাসী স্থানীয় প্রশাসন জানার আগেই দ্রুত অগ্নিদুগ্ধ ৬ শ্রমিককে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিজস্ব গাড়িতে করে পাঠানো হয় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শুনে তারা দৌড়ে চায়না কোম্পানীর সামনে যান। এর আগেই আগেই আহতদের নিজস্ব গাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয় হাসপাতালে। এসময় কাউকে কোম্পানীর ভিতরে ঢুকতে দেয়া হয়নি। মূল গেইট তালাবদ্ধ করে দিয়ে স্থানীয়দের জানানো হয় তেমন কিছু হয়নি, শুধুমাত্র মেশিনের শব্দ হয়েছে। অগ্নিদগ্ধ হওয়ার খবর বিভিন্ন ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে টনক নড়ে স্থানীয় প্রশাসনের।

খবর পেয়ে রাত সাড়ে দশটার দিকে নরসিংদীর সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুরা সার্কেল) আফসান আল আলম, বেলাব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্ম্দ নাজমুল হাসান, বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজিজুর রহমান, কলকারখানা অধিপ্তরের দুইজন কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদশন করেন। পরিদর্শনকালে কারখানায় ৬ জন চীনা নাগরিকসহ প্রায় ৩০ জন শ্রমিককে পাওয়া যায়। এসময় তাদেরকে কোম্পানির অনুমতি পত্রসহ বিভিন্ন কাগজপত্র দেখাতে বললে তারা কিছুই দেখাতে পারেনি বলে জানান তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চায়না ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং কোম্পানী লিমিটেড নামক কোম্পানীতে পরিবেশবান্ধব ইট তৈরী করার কথা। কিন্ত কয়েক সপ্তাহ ধরে তারা পরিবেশ বান্ধব ইট তৈরী না করে বিভিন্ন এলাকা থেকে ট্রাক ও গাড়ির টায়ার সংগ্রহ করে সেগুলো পুড়িয়ে সড়কের কার্পেটিং এ ব্যবহৃত বিটুমিন উৎপাদনের প্রস্তুতি নেয়। কোম্পানীটির কর্মকর্তারা জানান, গত শুক্রবার ছিল তাদের পরীক্ষামূলক টায়ার পুড়িয়ে সড়কের কাজে ব্যবহারের বিটুমিন (এক ধরনের তেল যা সড়কের পিচঢালাইয়ে ব্যবহৃত হয়) তৈরীর প্রথম ধাপ। কোম্পানীটি শুরুতেই ইট না পুড়িয়ে টায়ার পুড়ানোর কাজ শুরু করে। তবে তারা পরিবেশ অধিদপ্তর বা সংশ্লিষ্ট কোন দপ্তরের অনুমতি নেয়নি। শুধুমাত্র স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিয়েই কাজ শুরু করে।

শুক্রবার বিকালে বিটুমিন তৈরীর বয়লারের পাশে একটি ক্রেন বসানোর কাজ চলছিল। এ সময় ওয়েল্ডিং মেশিনে জ¦ালাইয়ের আগুনের ফুলকি বয়লারের ছাইয়ে গিয়ে পড়ে। এতে বিকট শব্দে বয়লারটি বিস্ফোরণ হয় এবং বয়লারে কাজ করা কোম্পানীর ৬ শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়।
অগ্নিদুগ্ধ শ্রমিকদের মধ্যে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের স্টুডেন্ট (২৬), আকাশ (১৯) সুকান্ত (২৬), লিংকন (১৯),বালচিং (২০) ও বরিশালের মাসুদ (২৪)। আহতদের ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

শনিবার সকালে সরেজমিন গিয়ে কারখানাটির গেইট তালাবদ্ধ পাওয়া যায়। এসময় সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ভিতরে যেতে চাইলে কোম্পানীর নিরাপত্তারক্ষীরা ভিতরে যেতে বাঁধা প্রদান করে ভিতরে মিটিং চলছে বলে জানান। প্রায় দুই ঘন্টা পর কারখানাটির ভিতরে যাবার অনুমতি মিলে স্থানীয় সাংবাদিকদের। এসময় দেখা যায় কারখানাটির অফিস কক্ষের সামনে দুইজন চায়না নাগরিক বসে আছেন। তারাই মূলত কারখানাটির মালিক। কথা হয় কারখানার ইনচার্জ সাজ্জাদ হোসেন ও চায়না নাগরিকদের বাঙ্গালী বন্ধু পরিচয় দেয়া ঢাকা উত্তরার এস এম সিরাজের সাথে।

কারখানাটির ইনচার্জ মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, পরীক্ষামূলক উৎপাদনের প্রথম ধাপ ছিল শুক্রবার। অসাবধানতাবশত বয়লারের মুখ বন্ধ করেনি শ্রমিকরা। বয়লারের পাশেই ওয়েল্ডিং এর কাজ করার সময় আগুনের ফুলকি এসে পড়ে বয়লারের ছাই এর মধ্যে। তখনই বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ৬ জন শ্রমিক আহত হয়। আহতদের কোম্পানীর খরচে শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এসময় তিনি আরো বলেন, মাসুদসহ দুইজন শ্রমিকের অবস্থা একটু খারাপ বাকি চারজন মোটামুটি সুস্থ আছেন। এসময় কারখানাটির কোন বৈধ কাগজপত্র বা অনুমোদন আছে কি না চানতে চাইলে তিনি কথা এড়িয়ে গিয়ে বলেন এটা একটা দুঘর্টনা।

নারায়ণপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ কাউসার কাজল বলেন, মাস দুয়েক আগে তারা পরিষদ থেকে পরিবেশবান্ধব ইট তৈরীর কথা বলে একটি ট্রেড লাইসেন্স নেয়। এসময় তারা জানান ইট তৈরীর অন্যান্য কাগজপত্র করতে গেলে প্রথমে নাকি ট্রেড লাইসেন্স দিতে হয়। একারণে আমি ট্রেড লাইসেন্স দিয়েছিলাম। কিন্তু এটার ভিতরে কি হতো তা জানতাম না।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা বেলাব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ নাজমুল হাসান বলেন, রাতেই খবর শুনে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এসময় কারখানার লোকজন তাদের কাগজপত্র আছে জানালেও সেসময় কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। তারা বলেছেন রোববার দিন কাগজপত্র নিয়ে অফিসে আসবেন। প্রাথমিকভাবে আমার মনে হয়েছে তাদের কোন বৈধ কাগজপত্র নেই।

বেলাব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল করিম বলেন, ওই কারখানার কোন তথ্য আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


নরসিংদী জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক সমর কৃষ্ণ দাস বলেন, চায়না ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডিং কোম্পানী নামের কোন কোম্পানীর অনুমোদন নেই। তারা পরিবেশ অধিদপ্তরের থেকে কোন ছাড়পত্র নেয়নি, কোম্পানীটি অবৈধ। খুব শ্রীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

 

 

 

 



এই বিভাগের আরও