ঢাবি সাধারণ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন-গেস্টরুম নির্যাতন বন্ধ কর

১৬ জুলাই ২০১৯, ০৯:২৮ এএম | আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০২:১৪ এএম


ঢাবি সাধারণ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন-গেস্টরুম নির্যাতন বন্ধ কর
ঢাবি সাধারণ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি                         

গেস্টরুম নামক টর্চারসেল বন্ধ করজিয়া হলের ছাত্র নিপীড়কদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার কর

১৫ জুলাই ২০১৯ দুপুর ১.৩০ টায় ‘বৈধ সিট আমার অধিকার’ ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হল ক্যাফেটেরিয়ার সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। আমাদের মূল বক্তব্য ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বস্তরের সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য বৈধ সিট নিশ্চিত করা।

মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদকারীরা জিয়া হলের শনিবার মধ্যরাতে ১ম বর্ষের ছাত্রদের উপর হওয়া নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়ে জিয়া হলের সামনে একটি  মৌন মিছিল করে। পরবর্তীতে মিছিলটি বাণিজ্য অনুষদ, কলা ভবন হয়ে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে এসে সমাপ্ত হয়। আমাদের পক্ষ থেকে রাখা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল সংক্রান্ত ছয়টি দাবি হলো-

১. প্রথম বর্ষ থেকে প্রশাসন কর্তৃক বৈধ সিট বরাদ্দ দিতে হবে।

২. সিট বরাদ্দে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ চলবে না।

৩. অবৈধভাবে হল দখলকারীদের অবিলম্বে হল ত্যাগ করতে হবে ।

৪. পলিটিক্যাল গণরুম বাতিল করতে হবে।

৫. গেস্টরুম নামক টর্চারসেল বন্ধ করতে হবে।

৬. পলিটিক্যাল রুমের নামে রুম দখল চলবে না।

মানববন্ধনকারী শিক্ষার্থী ২য় বর্ষের আরমানুল হক বলেন-“ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ছাত্রলীগ পলিটিক্স করতে বাধ্য করে সিটের দোহাই দিয়ে। আমরা চাই হলে অবস্থানরত সব শিক্ষার্থীরাই বৈধভাবে হলে থাকবে। গণরুমগুলো কোন পলিটিক্যাল সংগঠনের অধীনে না হয়ে প্রশাসনের অধীনে হতে হবে। জোর করে কেউ তাদের মধুর ক্যান্টিনে প্রোগ্রামে নিয়ে যেতে পারবে না। ম্যানার শেখানোর নামে গেস্টরুম অত্যাচার চলবে না। বরং প্রশাসন কর্তৃক ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য সাপ্তাহিক কাউন্সিলিং এর ব্যবস্থা থাকতে হবে।”


বিভাগ : শিক্ষা