রায়পুরায় নদী ভাঙনে বিলীন ১৫টি বসতঘর, ঝুঁকিতে ২ হাজার পরিবার

২১ জুন ২০২২, ০৬:৪৩ পিএম | আপডেট: ২৫ জুন ২০২২, ০২:৪২ এএম


রায়পুরায় নদী ভাঙনে বিলীন ১৫টি বসতঘর, ঝুঁকিতে ২ হাজার পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীর রায়পুরায় মেঘনা নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে ১৫ টি বসতঘর ও ঘরে থাকা আসবাবপত্র।  সোমবার দিবাগত রাত থেকে আজ মঙ্গলবার (২১ জুন) বিকেল পর্যন্ত উপজেলার চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের মহিষবেড় গ্রামের ১৫ টি বসতঘর ভেঙে নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এছাড়াও ভাঙন আতংকে আছেন প্রায় দুই হাজার পরিবার।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে হঠাৎ বিকট শব্দে নদীতে ভাঙন শুরু হয়। আধা ঘন্টার মধ্যেই বিলীন হয়ে যায় ৫ টি বসতঘর। পরে রাতেই মসজিদের মাইকে ভাঙনের কথা ঘোষণা করা হলে স্থানীয়রা দ্রুত এগিয়ে এসে ঘুমন্ত কয়েক পরিবারকে নিরাপদে সরিয়ে নেয় । তবে ঘরের ভিতর থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার সহ আসবাবপত্র বের করে আনা সম্ভব হয়নি। সকাল হতে হতে ভাঙনের কবেল পড়ে আরও পাঁচটি বসতঘর। মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত এই এলাকার মোট ১৫ টি বসতঘর মেঘনায় বিলীন হয়ে গেছে।

এদিকে, ভাঙন আতংকে আছেন চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের মহিষবেড় গ্রামের অন্তত দুই হাজার পরিবার। গেল আট বছরে মহিষবেড় গ্রামের দেড় শতাধিক পরিবার নদী ভাঙনের শিকার হয়ে বসতভিটা হারিয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

জানতে চাইলে রায়পুরার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আজগর হোসেন বলেন, চরসুবুদ্ধির মহিষবেড় এলাকার ভাঙনস্থল ইতোমধ্যে পরিদর্শন করেছি। যাদের বসতভিটা বিলীন হয়ে গেছে তাদের একটি তালিকা তৈরী করা হচ্ছে। সরকারীভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের নতুন আশ্রয়নের ব্যবস্থা করা হবে।



এই বিভাগের আরও